Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

রবিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

তুলা রাশিফল

libra

libra

তুলারাশি চরিত্রগত:
তুলারাশির জাতক-জাতিকারা শুক্র গ্রহের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত যা তাঁদের দৃঢ়চেতা মানসিকতার কারন। তাঁরা বুদ্ধিজীবী মানুষ যারা অভিজ্ঞতা অর্জন করতে চায়। তাঁরা জীবনটা উপভোগ করে এবং তাঁরা সুন্দর জিনিস দেখে উৎফুল্ল হয়ে পড়ে। তাঁদের শৈল্পিক মেধা রয়েছে এবং তাঁরা সাধারনত শিল্পকলা পছন্দ করে। তাঁরা রত্ন, মার্জিত কাপড়, সব ধরনের আমোদ-ফুর্তি, গান-বাজনা, নৃত্যকলা, এবং অর্থ ভালোবাসে যা তাঁদের চাওয়া পাওয়া পূরণ করে। সততা ও দায়িত্বশীলতা তাঁদের বৈশিষ্ট্য। তাঁরা সাধারনত, সহানুভূতিশীল, বিশ্বপ্রেমিক ও বন্ধুভাবাপন্ন। তাঁদের কিছু সপ্ন আছে এবং তাঁরা সেই অনুযায়ী বেঁচে থাকতে চায়। তুলারাশির জাতক-জাতিকারা উচ্চাভিলাষী, এবং কিছুটা অহংকারী যাতে সহজেই মানুষ বিক্ষুব্দ হতে পারে।

তুলারাশির দোষের মধ্যে রয়েছে তাঁদের অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা, ধৈর্যহীনতা, এবং নিশ্চিন্ত স্বভাব যা অর্থের অপচয় ঘটাতে পারে। তাঁরা সবসময় যুক্তির চাইতে আবেগকে বেশী গুরুত্ব দেয়।

সম্পর্কের ক্ষেত্রে, তাঁদের উদারতার কারনে তাঁরা খুব সহজে নতুন বন্ধু পেয়ে যায়। তাঁরা ঝামেলা এড়াতে পারে না তাই তাঁদের এমন সঙ্গী প্রয়োজন যে তাঁর পাশে থাকবে। বিবাহ ও সমাজ তাঁদের জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ অংশ। কিন্তু, মাঝেমধ্যে, তাঁর সঙ্গীর সাথে সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

তুলারাশির লোকেরা সব ধরনের কাজের জন্য ভালো যেখানে তাঁরা মানুষের সাথে কাজ করতে পারবে। তাই তাঁদের জন্য আদর্শ পেশা হবে শিল্পকলা বা ব্যাবসা। কর্মজীবনে ব্যর্থতার কারন হতে পারে উদাসীনতা এবং অন্যের অধীনে কাজ করার প্রবণতা।


২০১৫ সালের রাশি ফল
এই কোমল লক্ষণ নিয়ে জন্মগ্রহণকারী মানুষ আবেগ এবং যুক্তিপূর্ণ মানসিকতার হয়ে থাকে এবং ছন্দময় এবং সুখী জীবন ধারণ করতে চায়। শুক্রগ্রহের অধীনে থেকে আপনি সৃজনশীল এবং কূটনৈতিক হতে পারেন। রাশিফল ২০১৫ তুলারাশির জন্য নতুন তথ্য ও পরিবর্তন নিয়ে আসে। ২০১৪ সালের ব্যতিক্রম হিসেবে, যা শান্তিপূর্ণ ছিল, এই বছর তুলারাশির লোকজন অনেক বেশি অভিজ্ঞতা অর্জন করবেন।

বছরের শুরুতে আপনি বুঝতে পারবেন যে, আপনার কাজ অত্যন্ত দীর্ঘ সময় নেয় এবং আপনার প্রচেষ্টার কোনো ফলাফল আসে না। আপনার নিয়োগকর্তা সম্পূর্ণরূপে আপনাকে তারিফ করবেন না। পরিবর্তনকে ভয় পাবেন না, এবং যদি কোনো ভালো প্রস্তাব আসে, তবে কোনো কিছু মীমাংসা করবেন না এবং ভাগ্যকে বরণ করে নিন। এভাবে আপনি অনেক বেশি ত্বরা ও চাপ এরিয়ে যেতে পারেন, যা আপনি পছন্দ করেন না। রাশিফল আরও পরামর্শ দেয় যে, এই সময়ে আপনি আপনার পরিবারের প্রতি মনোযোগ দেন। আপনি দেখবেন যে, কেউ কেউ অন্যদের নিকট থেকে তার সমস্যাকে লুকানোর চেষ্টা করে।

বসন্তে শুক্র আসলেন আপনার দিকে হেলানো আছে। তার প্রভাবে, আক্ষরিক অর্থেই আপনি একজন আকর্ষণীয় ব্যক্তির উপস্থিতি বোধ করবেন। এটা আপনার সঙ্গী বা একজন নতুন বন্ধু হতে পারে। যাই হোক, এটা সুস্পষ্ট যে, এই ব্যক্তির সাথে আপনার অনেক অভিজ্ঞতা হবে এবং আপনি নতুন জিনিস চেষ্টা করবেন। অবশেষে, আপনি সম্পূর্ণরূপে আপনার জীবন উপভোগ করবেন।

বছরের দ্বিতীয়ার্ধ প্রথমে খুবই আশাপ্রদ হবে। অবশেষে আপনি আপনার কর্মজীবনে উন্নতি করতে পারবেন, আপনার সৃজনশীলতা এবং ধারণাকে ধন্যবাদ। ২০১৫ সালের গ্রীষ্মে রাশিফল দেখায় যে, মানুষ তখন একটি সম্পর্কে জড়িয়ে যাবে এবং তাঁদের বন্ধন সুদৃঢ় এবং গভীর হবে। আপনি ছন্দ উপভোগ করবেন। তুলারাশির একক ব্যক্তি অনেক বেশি রোমান্স এবং সাহসি কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করবেন। আক্ষরিক অর্থেই গ্রীষ্মকালের গরম রাত্রি আসছে।

শরৎ-এর সাথে সাথে মন্দা আসে। কেউ একজন আপনার পূর্বের ভাগ্যকে হিংসা করবে এবং আপনার নিকট থেকে তা চুরি করার চেষ্টা করবে। হতাশ হবেন না; সমস্যা থেকে পলায়ন করবেন না এবং একা একাই বিশ্বাসঘাতকটির মোকাবেলা করার চেষ্টা করুন। আপনি যে বুঝতে পারছেন আপনি তার চেয়ে শক্তিশালী এবং যখন সমস্যাটি কঠিন হয়ে যায় তখন আপনি সিদ্ধান্ত নিতে পারেন, এজন্য ধন্যবাদ। আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কে সজাগ থাকুন, অপ্রত্যাশিত দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

২০১৫ সালের শেষ ছন্দময় হবে। যদি আপনাকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হয়, তবে একটু সময় নিন। এই সময় খারাপ কিছুই ঘটবে না। সম্পর্ক এবং পরিবারের সাথে ছন্দ উপভোগ করুন, কিন্তু আপনার বন্ধুদেরও ভুলবেন না। ক্রিসমাসে আপনার ছোট্ট উপহার অবশ্যই তাদেরকে খুশি করবে।


horoscope

নিয়তি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে মাত্র ১০ ভাগকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। বাকি ৯০ ভাগের নিয়ন্ত্রণ কিন্তু আমাদের হাতে। বর্তমান প্রজন্মের কাছে এ কথাটি যেন আরো অর্থবহ। তবুও সবাই বছরের শুরুতে, মাসের শুরুতে, সপ্তাহের শুরুতে কিংবা দিনের শুরুতে হুমড়ি খেয়ে পড়ে রাশি ফলের সাথে নিজের ভাগ্যটাকে মিলিয়ে নিতে। আর এ জন্যই আমরা আপনার জন্য সপ্তাহান্তে প্রকাশ করছি নতুন রাশিফল।






উপরে

ব্রেকিং