Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

রবিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

মিথুন রাশিফল

gemini

gemini

মিথুনরাশি চরিত্রগত:
মিথুন রাশির জাতক-জাতিকারা সবসময় নতুন জিনিস শিখতে চায়, তাই তাঁদের সাধারণ জ্ঞান খুবই ভাল যদিও তা ভাসা-ভাসা। তাঁরা নতুন কিছু আবিস্কার করতে ভালবাসে এবং তাঁরা যদি গুরুত্বপূর্ণ কিছু পায় তবে তাতে গভীর মনোনিবেশ করে। অন্যরা যেখানে কিছু খুঁজে পায় না সেখানে তাঁরা অর্থপূর্ণ কিছু না কিছু খুঁজে পায়। মানুষের বিরাগ বা নেতিবাচক মন্তব্য তাঁদের অনুসন্ধিৎসাকে দমাতে পারে না। মিথুন রাশির মানুষেরা অন্যের অভিযোগ শোনে তাঁদের মতামত দেবার জন্য। অন্যদের মতামত তাঁদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ নয়, তাই তাঁরা তাঁদের মতামত অন্যদের উপর চাপিয়ে দেননা। তাঁদেরকে অনেক সময় অনেক শান্ত বলে মনে হয় কিন্তু ভেতরে ভেতরে তাঁরা অনেক সময় ভীষণ চাপের মধ্যে থাকে।

তাঁরা অনেক নিঃসঙ্গতায় ভোগেন কেননা, তাঁদের মধ্যে সবকিছু হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে এরকম একটা অনুভুতি কাজ করে। যাইহোক, তাঁরা নতুন মানুষের সাথে অতি সহজে মিশতে পারে। তাঁদের অভিজ্ঞতা ও অনুভূতির মেমরি বেশ ভালো। তাঁদের ন্যায়পরায়নতা, ভালো মেমরি ও ঠাণ্ডা মানসিকতার জন্য তাঁরা প্রতিপক্ষ হিসবে অত্যন্ত বিপদজনক। তাঁদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে আন্দোলন ও কর্মের স্বাধীনতা যা তাঁরা নিজেরাও অন্যদেরকে দিয়ে থাকে। যখন তাঁরা জানেন যে বিজয়ী কে, তখন হতাশ হয়ে হাল ছেড়ে দেন।

মিথুন রাশির মানুষেরা বাকযুদ্ধে পটু, কিন্তু তাঁরা অন্য ধরনের দ্বন্দ্ব আরিয়ে চলেন। পরনিন্দা ও অসৎ আচরনের পাশাপাশি তাঁরা নিজের লাভের জন্য অন্যের তোষামোদে লজ্জিত নন।

মিথুন রাশির দোষের মধ্যে রয়েছে অপরিপক্বতা এবং বিরামহীনতা কেননা তাঁরা নিজেরা নিজেদের ব্যাপারে নিশ্চিত নন এবং তাঁরা দ্রুত তাঁদের মত পরিবর্তন করেন। তাঁরা সহজেই অন্যদের বোঝাতে পারেন, কিন্তু কোন পরিস্থিতিতে কেবল মন্তব্য করে থাকেন। এজন্য অন্যদেরকে তাঁদের কথা শুনতে হবে এবং তাঁদেরকে বোঝার চেষ্টা করতে হবে। তাঁদের জীবনে অনেক উত্থান পতন থাকে: তাঁদের জীবনে সবচেয়ে সুসময় আসে তখনই যখন নক্ষত্রপুঞ্জ শুভ অবস্থানে থাকে। অপরদিকে, যখন অশুভ অবস্থানে থাকে তখন তাঁরা হীনমন্যতায় ভোগে।

সম্পর্কের ক্ষেত্রে, তুলনামূলকভাবে মিথুন সঙ্গী হিসেবে ভালো নয় কেননা তাঁদের আবেগ গভীর নয়। তাঁদের একই সময়ে অনেকগুলো সম্পর্ক থাকতে পারে, তাই তাঁরা অতি সহনশীল। তাঁদের অনেক স্বাধীনতা প্রয়োজন যা তাঁরা তাঁদের সঙ্গী কে দিয়ে থাকে।

কর্মক্ষেত্রে তাঁদের অবিশ্বাস এবং অস্থিরতার ফলাফল আমরা সহজেই দেখতে পারি। তাই তাঁদেরকে এমন পেশায় দেখা যায় না যেখানে কঠোর পরিশ্রম ও মনোনিবেশের প্রয়োজন হয়।

২০১৫ সালের রাশি ফল
বলা হয়ে থাকে যে মিথুনরাশি হলো জোড়া। তাঁদের অনেকে দুটি ভিন্ন ব্যক্তিত্ব লুকিয়ে রাখে। এই রাশিচক্রে জন্মগ্রহণকারী ব্যক্তি অত্যন্ত সংবেদনশীল এবং কূটনৈতিক মানসিকতাসম্পন্ন হয়। এই বছর আপনার গ্রহ বুধ আপনার উপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে, বিশেষ করে বিষয়টি যখন সম্পর্কের হবে। রাশিফল ২০১৫ মিথুনরাশিকে বিপরীত লিঙ্গের সদস্যদের সঙ্গে রোমান্টিক মুহুর্তের পূর্বাভাস দিচ্ছে। গত বছরের তুলনায়, এ বছর আপনি অনেক পরিবর্তন ও ব্যক্তিগত বিকাশের অভিজ্ঞতা পাবেন।

২০১৫ সালের শুরু থেকে, আপনি এবং আপনার সঙ্গীর মধ্যে আনন্দোচ্ছলতা থাকবে। কিন্তু আপনি বিনামূল্যে কিছুই পাবেন না। আপনার প্রণয়ীকে খুশি করার জন্য আপনাকে অন্তত অল্প কিছু চেষ্টা করতে হবে। আপনার আদর্শ অবিচল ভাব এবং কল্পনাশক্তির জন্য আপনাকে ধন্যবাদ, এটি আদৌ কঠিন হবে না। এই সময়ে আপনার কর্মজীবনের স্থবির হয়ে যাবে, কিন্তু আপনি ইতিবাচক থাকবেন।

বসন্তে আপনার আবেগকে আপনার ক্ষতি করতে দেবেন না। মিথুনের প্রতি রাশিফলর উপদেশ হলো, বাস্তববাদী হওয়া গুরুত্বপূর্ণ। আপনার নিজের আত্মীয়ের সঙ্গে অত্যন্ত বড় ধরনের ঝগড়া হতে পারে। আপনি নিজে বোঝেন যে, কিছু সময় আলাদা থাকা আসলে একটি ভালো ধারনা এবং আপনি নিজেকে নিয়ে একটু গভীর চিন্তা করুন। যখন আপনি তখন বুঝতে পারবেন কি গুরুত্বপূর্ণ আর কি না। শরীর ও মনকে শক্তিশালী করতে খেলাধুলা করার চেষ্টা করুন।

বছরের দ্বিতীয়ার্ধে আত্ম-উন্নয়ন চলতে থাকবে। নতুন শক্তি আসবে যার সুবিধা আপনি নিতে পারেন। এখন হলো মিথুনরাশি তাঁর অতীত সময়ের ঘটনার প্রতিফলন ঘটানো এবং মুল্যায়ন করা এবং তা থেকে শিক্ষা নেওয়া। আপনার মাথায় আপনি সব সমস্যা গুছিয়ে নিন এবং তারপর আপনি অনেক বেশি স্থিতিশীল হবেন। এছাড়াও আপনার কর্মজীবনের অগ্রগতির জন্য আপনি সামনে দেখতে পারবেন। গ্রীষ্মে আপনার সৃষ্টিশীলতার সম্ভাবনা অপার।

রাশিফল অনুযায়ী শরৎকাল হলো আপনার জন্য ভাগ্যবান সময়। পুরনো বিতর্ক বিস্মৃত হবে এবং পরিবারে ফিরে আসবে শান্তি ও সম্প্রীতি। যেকোনো বিষয়কে কাজে পরিণত করতে আপনি এবং আপনার কাছের লোকটি সবকিছুই করবেন। সহজেই আপনি বিপরীত লিঙ্গের সঙ্গে সম্পর্কে তৈরি করবেন এবং অনেক নতুন অভিজ্ঞতা হবে। আপনি আপনার কর্মক্ষেত্রে ‘ভালো’ করবেন, কিন্তু আপনার সহকর্মীদের মধ্যে বিশ্বাসঘাতকদের বিষয়ে খেয়াল রাখবেন। কেউ একজন আপনার ধারণা এবং সুবিধাদি চুরি করার চেষ্টা করবে।

শীতের শেষে মিথুনকে তাঁর স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেওয়া উচিত। এই সময়ের মধ্যে বুধ কোনো ভাল পর্যবেক্ষক হবে না, তাই আঘাত পাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। বছরের শেষটিকে ব্যবস্থাপনা করার চেষ্টা করুন। ২০১৫ ক্ষতিহীন।


horoscope

নিয়তি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে মাত্র ১০ ভাগকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। বাকি ৯০ ভাগের নিয়ন্ত্রণ কিন্তু আমাদের হাতে। বর্তমান প্রজন্মের কাছে এ কথাটি যেন আরো অর্থবহ। তবুও সবাই বছরের শুরুতে, মাসের শুরুতে, সপ্তাহের শুরুতে কিংবা দিনের শুরুতে হুমড়ি খেয়ে পড়ে রাশি ফলের সাথে নিজের ভাগ্যটাকে মিলিয়ে নিতে। আর এ জন্যই আমরা আপনার জন্য সপ্তাহান্তে প্রকাশ করছি নতুন রাশিফল।






উপরে

ব্রেকিং