Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

রবিবার ২৭ মে ২০১৮, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » নারী ও শিশু 

নেশাখোর স্বামীর নির্যাতন থেকে মুক্তি চায় স্ত্রী

নেশাখোর স্বামীর নির্যাতন থেকে মুক্তি চায় স্ত্রী
ছবি: ব্রেকিংনিউজ
আব্দুর রহমান(জসিম) ২৯ মার্চ ২০১৬, ৯:২৪ পূর্বাহ্ন Print

চুয়াডাঙ্গা: স্ত্রীর নিকট মোটা অংকের যৌতুক দাবি করে তা না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করেছে মাদকাসক্ত স্বামী।যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতনে জড়িয়েছেন তার শ্বশুর-শাশুড়িও। অত্যাচারের শিকার গৃহবধূ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে সামান্য সুস্থ্য হয়ে থানায় এমন অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর গ্রামের কলোনি পাড়ার প্রান্তিক কৃষক ওলী মোহাম্মদের কন্যা তহমিনা খাতুনের (৩০) সঙ্গে একই উপজেলার চিৎলা গোরস্থান পাড়ার সামসুল মালিতার ছেলে ইব্রাহীমের (৩৫) বিয়ে হয়। ২০০৪ সালে বিয়ের সময় যৌতুক বাবদ নগদ ৫০ হাজার টাকা, স্বর্ণালংকার ও গৃহস্থালি সামগ্রী দেয়া হয়।

বিয়ের পর দাম্পত্য জীবনে তাদের ২ সন্তানের জন্ম হয়।তারপরও নতুন করে যৌতুকের জন্য বিভিন্ন সময়ে স্ত্রীর ওপর অমানসিক নির্যাতন অব্যাহত রাখে স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যরা।

কিন্তু মেয়ের শান্তির কথা ভেবে প্রায়ই জামাইকে সাধ্যমতো টাকা দেয়া হতো বলে জানান নির্যাতিতা গৃহবধূর বাবা।

তিনি জানান, এর মধ্যে সে আরও টাকার জন্য মেয়ের ওপর নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় ইব্রাহীম। এর ধারাবাহিকতায় গত শনিবার দুপুরে ইব্রাহীম পুনরায় স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে ৪ হাজার টাকা এনে দিতে বলে। টাকা এনে না দেয়ায় রেখাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারপিঠ করে।

লাঠির আঘাতে গৃহবধূর শরীরের মাথা, চোখ, নাক, পিঠ, ঘাড় ও হাত-পায়ের বিভিন্ন অংশ থেতলে গেছে।

গৃহবধূ তহমিনা বলেন, তাদের কোন কারণে টাকার প্রয়োজন হলেই তারা আমাকে পিতামাতার বাড়ি থেকে টাকা এনে দেয়ার জন্য নানাভাবে চাপাচাপি করতে থাকে এবং টাকা দিতে না পারলেই মারপিট করে থাকে। বাবা-মা আমার সুখের জন্য নগদ টাকাসহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল দিয়েছে। বাপ-মা আর কত দিবে বলেন?

তহমিনা বলেন, আমার স্বামী ইব্রাহীম একজন মাদকাসক্ত। সে রাতের বেলা তাঁড়ী-মদ গিলে এসে আমাকে ঘরের ভিতর পুরে লোহার রড দিয়ে মারপিট করতে থাকে।

গৃহবধূ তহমিনা প্রতিবেদককে তার মাথা দেখিয়ে বলেন, এই দেখেন কয়েক মাস আগে আমার মাথায় লোহার রড দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করেছিল।একইভাবে তাদের টাকার প্রয়োজন হওয়ায় আমার বাপের বাড়ি থেকে ৪ হাজার টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে। কিন্তু আমি স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির কথায় রাজি না হওয়ায় গত শনিবার দুপুরে আমি বাড়িতে থাকাকালে তারা আমাকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে।

‘পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে চিৎলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। এখন তারা আমাকে নানাভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। আমার স্বামী একজন নিয়মিত নেশাখোর। আমি তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ। আমি তার থেকে মুক্তি চাই।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনা তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ব্রেকিংনিউজ/এইচএস



আপনার মন্তব্য

নারী ও শিশু বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং