Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

রবিবার ২৭ মে ২০১৮, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » নারী ও শিশু 

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যৌনসম্পর্ক, অতঃপর

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যৌনসম্পর্ক, অতঃপর
প্রতিনিধি ১৫ মার্চ ২০১৬, ১০:১২ পূর্বাহ্ন Print

মুন্সীগঞ্জ: পরকীয়া। এখন সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে। ভাঙছে সংসার। বাড়ছে কলহ। জীবনও দিতে হচ্ছে অনেক ক্ষেত্রে। তারপরও থেমে নেই পরকীয়া নামের অবৈধ এ যৌনাচার।

মুন্সীগঞ্জে ৫০ বছর বয়সী লম্পটের প্রেমে পড়ে এক তরুণী এখন দিশেহারা। লম্পটের বউ থাকার পরও সে এলকার প্রতিবেশী এক তরুণীর (২০) সঙ্গে গোপনে যৌন সম্পর্ক গড়ে তোলে। এদিকে তরুণীর অন্যত্র বিয়ে হলেও পূর্বের সম্পর্ক ছিন্ন করতে পারেনি। জেলার গজারিয়া উপজেলার গজারিয়া গ্রামে চলে এ কাণ্ড।

তরুণীর অভিযোগ, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তার সঙ্গে যৌনসম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিল স্থানীয় প্রতিবেশী সেলিম (৫০)। কিন্তু এরই মধ্যে তার অন্যত্র বিয়ে হয়ে যায়।

এদিকে বিষয়টি জানাজানি হলে শ্বশুর বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয় মেয়েটিকে। পরে সেলিমকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়। কিন্তু বিয়ের চাপ দেয়া হলে গা-ঢাকা দেয় অভিযুক্ত সেলিম।

নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ জানান, গজারিয়া গ্রামের তার প্রতিবেশী মৃত হাবু বেপারীর জামাতা সেলিম মিয়া (৫০) তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করে আসছিল।

তিনি জানান, তাকে কিছুদিন আগে পারিবারিকভাবে অন্যত্র বিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু ১মাস পর শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে গর্ভবতী মনে করে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করায়। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় পর তারা নিশ্চিত হয় তার গর্ভে ৭ মাসের সন্তান রয়েছে।

গৃহবধূ আগে থেকে অন্তঃসত্ত্বা, এটা নিশ্চিত হবার পর শ্বশুর বাড়ি থেকে তাকে তাড়িয়ে দিলে তরণী তার বাবার বাড়িতে আসলে বিষয়টি জানাজানি হয়।

এদিকে মেয়েটিকে অভিযুক্ত সেলিম প্রথমে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিলেও পরে সে অস্কৃতি জানায়। লম্পট সেলিম পলাতক থেকে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে বর্তমানে মেয়েটির পরিবারকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে লোক লজ্জার ভয়ে রীতিমত গৃহবন্দি নির্যাতিতা ওই গৃহবধূ।

খবর পেয়ে রবিবার রাতে গজারিয়া উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমা বেগম স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে বন্দি অবস্থা থেকে মেয়েটিকে মুক্ত করে আনেন।

গজারিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এবিএমএস দোহা জানান, মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মেয়েটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এইচএস



আপনার মন্তব্য

নারী ও শিশু বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং