Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

বুধবার ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » নারী ও শিশু 

নিখোঁজের ৩ দিন পর কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

নিখোঁজের ৩ দিন পর কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার
ছবি: ব্রেকিংনিউজ
এম.আরিফুল ইসলাম ১৪ মার্চ ২০১৬, ৯:৩৪ অপরাহ্ন Print

বরিশাল: বরিশালের কীর্তনখোলা নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার কলেজছাত্রীল মরদেহ প্রায় ৩ দিন পর উদ্ধার করেছে বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় দপদপিয়া পুরান ফেরিঘাট (বরিশাল প্রান্ত) সংলগ্ন কীর্তনখোলা নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের বরিশাল নৌ স্টেশন অফিসার আব্দুল করিম।

তিনি জানান, মরদেহ উদ্ধারের পর দপদপিয়া সেতু সংলগ্ন নদীর তীরে নিয়ে আসা হচ্ছে। এর আগে বরিশাল নার্সিং কলেজের প্রথম বর্ষের এক তরুণী নিখোঁজ রয়েছে বলে জানতে পারে মেট্রোপলিটন পুলিশ। নদী থেকে উদ্ধার হওয়া তরুণীর সঙ্গে তার মিল খুঁজে পাওয়া গেছে বলে জানা যায়।

তবে উদ্ধার হওয়া মরদেহটি নার্সিং কলেজের ওই তরুণীর কিনা তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়ে মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মুরাদ।

তিনি জানান, নার্সিং কলেজে একটি মেয়ে নিখোঁজ রয়েছে বলে খবর পান তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মেয়েটির নাম আঁখি গাইন (২০)। তিনি বানারীপাড়া উপজেলার কচুয়া এলাকার মৃত অমল চন্দ্র গাইনের মেয়ে। গত ১২ মার্চ (শনিবার) সকাল সাড়ে ৯টায় বরিশালের শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাদ (দপদপিয়া) সেতু থেকে কীর্তনখোলা নদীতে ঝাঁপ দেয় ওই তরুণী। এরপর থেকে সে নিঁখোজ ছিল। ঘটনার পর পর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের বরিশাল নৌ-স্টেশন ও বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে কীর্তনখোলা নদীতে উদ্ধার অভিযান শুরু করে সোমবার পর্যন্ত কয়েক দফায় উদ্ধার অভিযান চালায় তারা।

ওই সময় প্রত্যক্ষদর্শী মনির হাওলাদার জানান, ঝাঁপ দেয়ার আগে মেয়েটি তার ব্যাগ নদীতে ফেলে দেয়। এরপর সেখানে একটি ডিসকভার মোটরসাইকেলে এক যুবক এসে দাঁড়ালে মেয়েটি নদীতে লাফিয়ে পড়ে।

ব্রেকিংনিউজ/এইচএস



আপনার মন্তব্য

নারী ও শিশু বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং