Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

রবিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » বিজ্ঞান বিশ্ব 

বারমুডা ট্র্যায়াঙ্গলের রহস্যভেদ!

বারমুডা ট্র্যায়াঙ্গলের রহস্যভেদ!
বিজ্ঞানবিশ্ব ডেস্ক ১৭ মার্চ ২০১৬, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন Print

ঢাকা: কেন বারমুডা ট্র্যায়াঙ্গলে হারিয়ে যায় জাহাজ? কেনই বা নিখোঁজ হয়ে যায় বিমান? আর তার পর সেই জাহাজ বা বিমানগুলোর আর কোনও হদিস মেলে না। এমনকী খুঁজে পাওয়া যায় না তাদের ধ্বংসাবশেষও।

হাজারও তত্ত্ব-তালাশ করেও, গত অর্ধ শতাব্দী ধরে যে ধাঁধার কোনও উত্তর মেলেনি, সম্প্রতি তার জট খুলেছে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের।

বিজ্ঞানীদের সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, বারমুডা ট্র্যায়াঙ্গলে সমুদ্রের একেবারে তলদেশে কয়েকটি সুবিশাল আগ্নেয়গিরি রয়েছে। তার জ্বালামুখ থেকে গলগল করে বেরিয়ে আসছে বিষাক্ত মিথেন গ্যাস। অসম্ভব রকমের গরম অন্যান্য গ্যাসও। ওই সুবিশাল আগ্নেয়গিরিগুলি থাকায় আর সেগুলো থেকে প্রচুর পরিমাণে মিথেনের মতো বিষাক্ত গ্যাস বেরিয়ে আসায় সমুদ্রের তলদেশে জলজ প্রাণীদের পক্ষেও বেঁচে থাকাটা সম্ভব হয় না। সেই মিথেন গ্যাসই সমুদ্রের তলদেশ থেকে উঠে এসে পানির ওপর বুঁদবুঁদ তৈরি করে। পানিকে আরও ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে তোলে। গ্যাসে চারপাশ ঢেকে যায় বলে জাহাজের নাবিকের পক্ষে তো আর কিছু দেখা সম্ভব হয়ই না, এমনকী, তা কম্পিউটারের নেভিগেশন ব্যবস্থাকেও বিগড়ে দেয়। ফলে পথ হারিয়ে ফেলা ছাড়া জাহাজের নাবিকের আর কিছুই করার থাকে না। একই কারণে, পথ হারিয়ে ভেঙে পড়ে বারমুডা ট্র্যায়াঙ্গলের ওপর দিয়ে উড়ে যাওয়া বিমানও।

নরওয়ের আর্কটিক বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক একেবারে হালে নরওয়ের উপকূলে ব্যারেন্টস সাগরের তলদেশে ওই সুবিশাল আগ্নেয়গিরিগুলোর সন্ধান পেয়েছেন। তারা জানাচ্ছেন, ওই মিথেন গ্যাস সমুদ্রের পানির অন্তত ১৫০ ফুট ওপর পর্যন্ত ছড়িয়ে থাকে। আর তা ছড়িয়ে থাকে আধ মাইল এলাকা জুড়ে।

ব্রেকিংনিউজ/ডিএইচ



আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞান বিশ্ব বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং