Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

রবিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » বিজ্ঞান বিশ্ব 

কুকুরের মতো গন্ধ শুঁকে বিস্ফোরকের ইঙ্গিত দেবে যন্ত্র

কুকুরের মতো গন্ধ শুঁকে বিস্ফোরকের ইঙ্গিত দেবে যন্ত্র
বিজ্ঞানবিশ্ব ডেস্ক ১১ মার্চ ২০১৬, ১:২৬ পূর্বাহ্ন Print

ঢাকা: ছোট্ট একটি যন্ত্র বাতাসে মিশে থাকা সামান্যতম রাসায়নিকের গন্ধ ‘সেন্সর’ করে বলে দিতে পারবে কাছে কোথাও মারাত্মক বিস্ফোরক আছে কি না৷

বিস্ফোরণ ঠেকাতে সম্প্রতি এমনই এক যন্ত্র আবিষ্কার করেছেন আমেরিকার ইউনিভার্সিটি অফ রোডল্যান্ডের এক অধ্যাপক৷

অধ্যাপক ওট্টো গ্রেগারি জানান, তার সেন্সর ডিভাইস অনেকটা কুকুরের নাকের মতো৷ কুকুরের ঘ্রাণশক্তি প্রখর৷ সেই ঘ্রানশক্তি কাজে লাগিয়ে বিস্ফোরক বা সন্দেহজনক বস্তু চিহ্নিত করতে পারে সারমেয়রা৷ নতুন এই যন্ত্রটিও বাতাসে মিশে থাকা রাসায়নিকের উপস্থিতি সেন্সর করতে পারবে৷ ফলে ভবিষ্যতে সারমেয়র বদলে এই যন্ত্র দিয়ে তল্লাশি চালাতে পারবে নিরাপত্তা দল৷

কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার গ্রেগারির দাবি, তার এই যন্ত্র নাইট্রোজেন ও পারক্সাইড জাতীয় বিস্ফোরক মুহূর্তে ধরে ফেলতে পারবে৷ গ্রেগারি পরীক্ষাগারে তার প্রমাণও দেখিয়েছেন৷

গোয়েন্দারা বলছেন, গত নভেম্বর প্যারিসে বিস্ফোরণে ট্রায়াসিটন ট্রাইপারক্সাইড রাসায়নিকটি ব্যবহার করেছিল জঙ্গিরা৷ মারা গিয়েছিলেন ১৩০ জন৷ ২০০৫ সালে লন্ডন বিস্ফোরণেও ব্যবহার হয়েছিল এই রাসায়নিক৷ গবেষকরা বলছেন, টিএটিপি রাসায়নিকটি খোলা বাজারে সহজেই পাওয়া যায়৷ এই রাসায়নিক সামান্য ব্যবহার করে শক্তিশালী বিস্ফোরক বানানো সম্ভব৷ গ্রেগারি তাঁর পরীক্ষাগারে প্রমাণ দেখিয়েছেন, তার যন্ত্র ট্রায়াসিটন ট্রাইপারক্সাইড (টিএটিপি) রাসায়নিকটি সেন্সর করতে সক্ষম৷

গ্রেগরির গবেষণার জন্য বর্তমানে অর্থ দিচ্ছে হোমল্যান্ড সিকিওরিটি বিভাগ৷ হোমল্যান্ড সিকিওরিটি দেশের নিরাপত্তা সুরক্ষিত করতে দেশের বাঘা বাঘা গবেষকদের নিয়ে একটি কেন্দ্র খুলেছে৷ গ্রেগরির এই যন্ত্র ভবিষ্যতে কার্যকরী হবে বলেই আশাবাদী হোমল্যান্ড সিকিওরিটি৷

গ্রেগরি জানিয়েছেন, তার যন্ত্র আসলে কুকুরের বৈদ্যুতিক নাক৷ যা সপ্তাহের সাত দিন ২৪ ঘণ্টা কাজ করতে সক্ষম৷ বিস্তীর্ণ এলাকায় কাজ করতে পারবে তার সেন্সর যন্ত্রটি৷

ব্রেকিংনিউজ/ডিএইচ



আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞান বিশ্ব বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং