Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

সোমবার ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, পূর্বাহ্ন

প্রচ্ছদ » বিজ্ঞান বিশ্ব 

২০৪৫ সালের মধ্যে অমরত্ব লাভের দাবি!

২০৪৫ সালের মধ্যে অমরত্ব লাভের দাবি!
বিজ্ঞান ডেস্ক ০৫ জানুয়ারী ২০১৬, ৪:২৬ অপরাহ্ন Print
এ সম্পর্কিত আরও খবরঃ

ঢাকা: আর মাত্র কয়েকটা বছর। তারপর নাকি মরা মানুষও বাঁচিয়ে তুলবে তারা। এমনই অদ্ভুত দাবি এক সংস্থার। তারা বলছে, আজীবন বেঁচে থাকতে গেলে মৃত্যুর আগে মস্তিষ্কটাকে তুলে দিতে হবে তাদের হাতে। তারপরই মিলবে অমরত্বের চাবিকাঠি। বিষয়টা বেশ গোলমেলেও বটে।

ব্যক্তির নাম জশ বকানেগরা। তার সংস্থা হুমাই-এর প্রধান কাজ হল মানুষকে অমর করে তোলা। সেই কাজে নাকি অনেকটা এগিয়েছে সংস্থা। ২০৪৫-এর মধ্যেই যাবতীয় কাজ শেষ হয়ে যাবে। এরপরই আসল খেল। মস্তিষ্ক দান করলেই এ যাত্রা অমর হয়ে যাবেন যে কোনও ব্যক্তি। কিন্তু, কীভাবে ? তার উত্তর দিয়েছেন স্বয়ং অমরত্বের লোভ দেখানো বকানেগরা। তার সংস্থা এক ধরনের রোবট তৈরি করবে। সেই রোবটটি তৈরি হবে মানুষের দেহাংশ ও ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে। কিন্তু, রোবটের মস্তিষ্ক থাকবে না।

এবার ধরা যাক যদুবাবু অমর হতে চান। তাকে কী করতে হবে ? মৃত্যুর আগেই স্বেচ্ছামৃত্যুকে বরণ করে নিতে হবে। আরও সহজ করে বললে, হুমাই-এর হাতে তুলে দিতে হবে নিজের মস্তিষ্ক। সচল মস্তিষ্ক তুলে নিয়ে তা ভরে দেওয়া হবে ওই রোবটের মাথায়। তাহলেই কেল্লাফতে, মাংস ও যন্ত্রপাতির মিশেলে পাওয়া এক নতুন শরীর নিয়ে হেসেখেলে জীবন কাটিয়ে দেবেন যদুবাবু। আর মরার ভয় পেতে হবে না। রক্ত মাংসের শরীরে থাকা মস্তিষ্কের যাবতীয় সু ও বদবুদ্ধি অক্ষত থাকবে নতুন শরীরে। তাহলে আর চিন্তা নেই। মোদ্দা কথাটা হল, আজীবন বাঁচতে হল একবার মরুন।

ব্রেকিংনিউজ/এমএএস



আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞান বিশ্ব বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং