Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

শুক্রবার ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, পূর্বাহ্ন

প্রচ্ছদ » রাজনীতি 

কাউন্সিলে মহাসচিব ঘোষণা না হওয়ার নেপথ্যে

কাউন্সিলে মহাসচিব ঘোষণা না হওয়ার নেপথ্যে
কিরণ সেখ ২৯ মার্চ ২০১৬, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন Print

ঢাকা: অনেক জল্পনা-কল্পনা ও উত্তেজনার মধ্যে গত ১৯ মার্চ জাকজমকভাবে শেষ হয়েছে বিএনপির ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল। এই কাউন্সিলের মধ্য দিয়ে বিএনপির গঠনতন্ত্র সংশোধন, ভিশন-২০৩০ ঘোষণা, চেয়ারপারসন ও সিনিয়ন ভাইস চেয়ারম্যান পদে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান আবারও নির্বাচিত হয়েছেন। তবে বহু প্রত্যাশিত দলটির পূর্ণাঙ্গ মহাসচিব পাওয়া যায়নি।

এদিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিএনপির মহাসচিব চূড়ান্ত, কাউন্সিলের আগে এমন তথ্য পাওয়া যায় দলটির বিভিন্ন মহল থেকে। যা কাউন্সিলে দলের চেয়ারপারসন বেগম জিয়া ঘোষণা দিবেন বলেও ধারনা করছিলেন দলের অধিকাংশ নেতাকর্মী। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মহাসচিব হিসেবে কারও নামই আর ঘোষণা হয়নি। এর নেপথ্যের কারণ হিসেবে জানা গেছে- বিএনপির স্থায়ী কমিটি দু’টি অংশে বিভক্ত।

বিএনপির একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, স্থায়ী কমিটির নেতারা মহাসচিব পদে কে নির্বাচিত হবেন তা নিয়ে দু’টি ভাগে বিভক্ত হয়ে গিয়েছেন। একটি অংশ চাচ্ছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে এ পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে স্থায়ী কমিটির একজন শীর্ষ নেতাকে মহাসচিব নির্বাচিত করা হোক। এই অংশটি ইতিমধ্যে মহাসচিব পদে সেই নেতাকে নির্বাচিত করতে উঠে-পড়ে লেগেছেন এবং সেই নেতাকে (ইনল্ফুয়েন্স) করার চেষ্টা করছেন বলেও জানা গেছে। তার তার নাম নিশ্চিত নয়।

তবে গুঞ্জন রয়েছে, তিনি হচ্ছেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তবে নতুন করেন এ পদের জন্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর নামও আলোচনায় যোগ হয়েছে।

অপরদিকে দলের স্থায়ী কমিটির অপর অংশটি চাচ্ছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরই পূর্ণাঙ্গ মহাসিচব হোক।

দলের কাউন্সিলে মহাসচিব ঘোষণা না করার নানান বিষয় নিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে কথা হয় ব্রেকিংনিউজের।

বিএনপি নীতিনির্ধারণী এ নেতা বলেন, দেশের বৃহৎ রাজনৈতিক দলগুলোর কাউন্সিল ও সম্মেলনে কখনও মহাসচিব কিংবা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয় না। কাউন্সিলে সাধারণত সভাপতি বা চেয়ারম্যানকে নির্বাচিত করা হয়। আর কাউন্সিলররা কমিটি গঠনের জন্য সভাপতিকেই দায়িত্ব দেন।

তবে এই বিষয়ের সাথে দ্বিমত পোষণ করে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই প্রভাবশালী সদস্য ব্রেকিংনিউজকে বলেন, মহাসচিব নির্বাচন নিয়ে দলের স্থায়ী কমিটিদের মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দল সৃষ্টি হয়। কারণ স্থায়ী কমিটির একটি অংশ মির্জা ফখরুলকে এবং অপর অংশটি অন্য কাউকে মহাসচিব হিসেবে নির্বাচিত করার পক্ষে মতামত দিয়েছেন। যার ফলে দলের জাতীয় কাউন্সিলে মহাসচিবের নাম ঘোষণা করা হয়নি।

এ বিষয়ে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন ব্রেকিংনিউজকে বলেন, মহাসচিব ও স্থায়ী কমিটি নির্বাচিত করতে দলের কাউন্সিলররা বিএনপি চেয়ারপারসনের ওপর দায়িত্ব দিয়েছেন। এই বিষয়টি আমার কিছু বলার নেই। তবে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবকে পূর্ণাঙ্গ ‘মহাসচিব’ হিসেবে নির্বাচিত করা হলে এই বিষয়ে আমাদের দ্বিমত থাকবে না।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ১৬ মার্চ বিএনপি মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যুর পর ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ব্রেকিংনিউজ/ কেএস/এইচএস



আপনার মন্তব্য

রাজনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং