Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

শুক্রবার ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » সাক্ষাৎকার 

লালন সঙ্গীতকে লালন করতে সরকারের সহযোগিতা চাই

লালন সঙ্গীতকে লালন করতে সরকারের সহযোগিতা চাই
বাবুল হৃদয় ও আবদুল গফুর ০২ ডিসেম্বর ২০১৫, ৪:০১ অপরাহ্ন Print

ঢাকা: লালন সম্রাজ্ঞী ফরিদা পারভীন। লালন সঙ্গীতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ১৯৮৭ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশ সরকারের একুশে পদক এবং অনন্ত প্রেম ছবিতে ‘নিন্দার কাঁটা’গানটি গেয়ে ১৯৯৩ সালে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। বর্তমান ব্যস্ততাসহ সঙ্গীতের নানা বিষয় নিয়ে বুধবার (১ডিসেম্বর) ব্রেকিংনিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন বাবুল হৃদয় ও আবদুল গফুর-

ব্রেকিংনিউজ: আজ শেষ হচ্ছে উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত উৎসব। অনুষ্ঠান সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন?
ফরিদা পারভীন: সঙ্গীতের শৈলীর জন্য এই উৎসবের খুব-ই দরকার ছিল। গত কয়েক বছর ধরে চলা এ উৎসব অসম্ভব সুন্দর হয়েছে। বিভিন্ন দেশের শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করেছে। দর্শকরা রাত জেগে, ধৈর্য ধরে তা উপভোগ করছে। এটা একটা মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে। সংগীতের এই মিলনমেলা যেন না ভাঙ্গে। প্রতি বছর চলতে থাকে। আয়োজকদের আমি সাধুবাদ জানাই, এই সুন্দর আয়োজনের জন্য।

ব্রেকিংনিউজ: সম্প্রতি অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক লোক উৎসবে গাইলেন, অনুভূতি কেমন?
ফরিদা পারভীন: এক কথায় অসাধারণ। এত মানুষের ঢল নেমেছিল। তা দেখে আমি আনন্দিত, অভিভূত। এমন অনুষ্ঠান প্রতিবছরই করা দরকার। ভারত, পাকিস্তান, আয়ারল্যান্ড ও চীন থেকে অনেক শিল্পী এসেছিলেন। যারা প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছেন। এটা একটা ইতিবাচক দিক। তাছাড়া ৩ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানকে সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে যারা কাজ করেছেন, তাদের প্রতি আমি আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাই।

ব্রেকিংনিউজ: অনেকের প্রশ্ন-আপনি লালনের গানকে আধুনিকায়ন করছেন?
ফরিদা পারভীন: গানের কথা, সুর ও গায়কী ঠিক রেখে যন্ত্র ব্যবহার করতে কোন অসুবিধা নেই। যন্ত্রকে এমনভাবে ব্যবহার করতে হবে যেন গানটি ছাপিয়ে না যায়। উচ্চারণ, তাল, লয় ঠিক রেখে গান করতে হবে।

ব্রেকিংনিউজ: শুনেছি লালন গানের স্বরলিপি করছেন?
ফরিদা পারভীন: হ্যাঁ, ২৫ টি গান সম্পূর্ণ হয়েছে। মোট ১০০ টি করার ইচ্ছা আছে। কাজ চলছে। সময় লাগবে, তবুও শেষ করতে চাই।

ব্রেকিংনিউজ: নতুন কোন অ্যালবাম বাজারে আসছে?
ফরিদা পারভীন: ৫ জন মরমী কবির গান নিয়ে অ্যালবাম করার চিন্তা করছি। শিগগিরই এটার কাজে হাত দেব।

ব্রেকিংনিউজ: সামনে কোন প্রোগ্রাম আছে কি?
ফরিদা পারভীন: এই মাসের ৭ তারিখে আই.সি.সি.আর-এর লালন সঙ্গীতের অনুষ্ঠানে ভারত যাব ।

ব্রেকিংনিউজ: নতুন যারা গানের জগতে আসছে তারা কেমন করছে?
ফরিদা পারভীন: নতুনদের অনেকেই ভালো করছে। তবে নিয়মিত চর্চা ও সাধনা না করায় তারা একসময় হারিয়েও যাচ্ছে। তারপরেও আমি আশাবাদী আমার গানের স্কুল আচিন পাখিসহ যারা বিভিন্ন স্থান থেকে তালিম নিচ্ছে, তাদের মধ্যে থেকে কিছু শিল্পী লালনের গানকে আঁকড়ে ধরতে পারবেন।

ব্রেকিংনিউজ: বর্তমান প্রজন্মের শিল্পীদের জন্য আপনার পরামর্শ কি?
ফরিদা পারভীন: সঙ্গীত গুরুমুখি বিদ্যা। চর্চা ও সাধনা করতে হয়। সঙ্গীত খুব অভিমানী। এটাকে ভালবেসে গ্রহন না করলে বেশিদিন টিকে না। এক পর্যায়ে হারিয়ে যায়। শিখে গান গাইতে হবে।

ব্রেকিংনিউজ: আপনার গানের স্কুল ‘অচিন পাখি’ কেমন চলছে?
ফরিদা পারভীন: ভালো চলছে। স্বল্প খরচে গান শেখার চমৎকার একটি জায়গা ‘অচিন পাখি’। যারা আসতে চায়, শিখতে চায়, তারা আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারে। আমাদের ঠিকানা ৬২ তেজকুনি পাড়া, তেজগাঁও, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাইল- ০১১৯৭-৪৪৫৮৮৩। এছাড়া বাগেরহাটে ও অচিন পাখির একটি শাখা রয়েছে ।

ব্রেকিংনিউজ: আগামীর ভাবনা কি?
ফরিদা পারভীন: আমি চাই আমার একটা স্থায়ী জায়গা হোক। সেখানে একটা স্টুডিও হবে। একটা আর্কাইভ থাকবে। লাইব্রেরী থাকবে। যারা গবেষণা করতে আসবে তাদের থাকার ব্যবস্থা থাকবে। বর্তমানে বাসা ভাড়ার যে লাগামহীন মূল্য, তার কাছে আমরা অসহায়। সরকারি সহযোগিতা পেলে এগিয়ে যাওয়া সহজ হত। লালন সঙ্গীতকে লালন করতে সরকারের সহযোগিতা চাই।

ব্রেকিংনিউজ: ব্রেকিংনিউজের পক্ষ থেকে আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।
ফরিদা পারভীন: আপনাদেরকে এবং ব্রেকিংনিউজের পাঠকদেরও অনেক ধন্যবাদ। সাথে রইলো শুভ কামনা।

ব্রেকিংনিউজ/এমএএ



আপনার মন্তব্য

সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং