Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

শুক্রবার ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » সাক্ষাৎকার 

‘৩ বছরের মধ্যে নিজেদের ফ্যাক্টরি করতে চাই’

‘৩ বছরের মধ্যে নিজেদের ফ্যাক্টরি করতে চাই’
প্রতিবেদক ১৩ জুন ২০১৫, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন Print

ঢাকা: বর্তমান প্রজন্মকে প্রযুক্তির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে প্রযুক্তি পণ্য ছাড়া কোন ভাবেই সম্ভব নয়। আমাদের দেশ প্রযুক্তিতে অনেক এগিয়ে যাচ্ছে কিন্তু দেশে প্রযুক্তি পণ্য তৈরি করে এমন প্রতিষ্ঠান খুব কম।

দেশিয় প্রতিষ্ঠান গোল্ডবার্গ চীন থেকে নিজস্ব ব্র্যান্ড হিসাবে পণ্য তৈরি করে নিয়ে আসে। গোল্ডবার্গ প্রতিষ্ঠানটিকে শ্রেষ্ঠ অবস্থানে নিয়ে যেতে চায় গোল্ডবার্গের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবরার রহমান খান।

গোল্ডবার্গের শুরু, পরিকল্পনা, সফলতা ইত্যাদি প্রভৃতি উঠে এসেছে ব্রেকিংনিউজের প্রতিবেদক অঞ্জন চন্দ্র দেবের নেয়া সাক্ষাৎকারে:

ব্রেকিংনিউজ: গোল্ডবার্গ সম্পর্কে বলুন?
আবরার রহমান খান: গোল্ডবার্গের জম্ম ২০১২ সালে। তবে এর কার্যক্রম শুরু হয় ২০১৪ সালের এপ্রিল থেকে। প্রথম থেকেই আমাদের উদ্দেশ্য ছিল বাজারে ল্যাপটপ, ট্যাব ও স্মার্টফোন নিয়ে আসা। পণ্যের মান ভালো রাখা এবং পণ্যের দাম থাকবে ক্রেতাদের নাগালে।

ব্রেকিংনিউজ:  আপনাদের কার্যক্রম সম্পর্কে বলুন?

আবরার রহমান খান: গোল্ডবার্গ চীন থেকে নিজস্ব ব্র্যান্ড হিসেবে পণ্য তৈরি করে নিয়ে আসে। আমরা বাজারে অন্য সকল পণ্য নিয়ে আগে যাচাই-বাছাই করে থাকি। সেই হিসেবে ক্রেতার ডিমান্ড তৈরি করি। আমাদের নিজস্ব ডিজাইন, লোগো ও ইউজার মেনোরাল থেকে শুরু করে আমাদের সব কিছু নিজস্ব কাস্টমাইজ করা হয়।

ব্রেকিংনিউজ: আপনাদের পণ্য সম্পর্কে জানতে চাই?

আবরার রহমান খান: আমরা প্রথমে বাজারে আসি ফিচার ফোন নিয়ে। যদিও আমরা বলেছিলাম আমরা সব ধরনের কালেকশন নিয়ে আসবো। পরবর্তিতে আমাদের কালেকশনে স্মার্টফোন যুক্ত হয়।

ব্রেকিংনিউজ: ২০১৫ সালে আপনাদের প্রযুক্তি পণ্য নিয়ে নতুন কোন আইডিয়া আছে?
আবরার রহমান খান: হ্যাঁ, আমরা ইতিমধ্যে বাজারে ফিচার ও স্মার্টফোন ছেড়েছি। ২০১৫ সালের শেষের দিকে আমরা নিজেদের ট্যাব আনতে যাচ্ছি।

ব্রেকিংনিউজ: গোল্ডবার্গের ডিজিটাল মার্কেটিং কীভাবে পরিচালিত হয়?
আবরার রহমান খান: বর্তমান যুগ প্রযুক্তির যুগ। তরুণ প্রজম্ম এখন সামাজিক সাইটগুলোতে বেশি মনোযোগী। তাই আমাদের ডিজিটাল মার্কেটিং পরিচালিত হয় ফেসবুক, টুইটার, গুগলপ্লাসসহ সামাজিক মাধ্যমগুলোতে।

ব্রেকিংনিউজ: আগামীতে আপনাদের আরও নতুন ফোন আসছে? আসলেও কবে নাগাত আসতে পারে?

আবরার রহমান খান: অবশ্যই নতুন নতুন পণ্য আসবে বাজারে। কাস্টমারদের কথা মাথায় রেখে, তাদের চাহিদা অনুযায়ী সব সময় নতুন পণ্য আসবে। বাজারে আমাদের আরও ৬টি ফিচার ফোন ও ৭টি স্মার্টফোন আসবে। ঈদের আগ মুহূর্তেই বাজারে আসবে পণ্যগুলো।

ব্রেকিংনিউজ: বাজারে কেমন সারা ফেলেছে আপনাদের ফিচার ফোন?
আবরার রহমান খান: আমাদের ২টি ফিচার ফোনেই বাজারে প্রচুর সারা ফেলেছে। অল্প কিছু দিনের মধ্যেই ৪০ হাজারেরও বেশি ফিচার ফোন বিক্রি হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ: বাজারে আরও কোম্পানির ফোন রয়েছে, অন্য ফোনের সাথে আপনাদের ফোনের পার্থক্য কী?
আবরার রহমান খান: অন্য ফোনের সাথে আমাদের ফোনের পার্থক্য আছে। প্রযুক্তিপণ্য প্রতিষ্ঠানগুলো বাহিরের তারা আমাদের দেশের চাহিদা বুঝতে পারে না। আমাদের দেশের মানুষের চাহিদা ও তাদের ব্যবহার উপযোগী করে আমরা পণ্য তৈরি করে থাকি। আমরা কাস্টমারদের ফোনের ফিচার সম্পর্কে যা বলি ফোনে বিন্দুমাত্র কম থাকে না।

ব্রেকিংনিউজ: অন্য ফোনের তুলনায় আপনাদের ফোনের দাম তুলনামূলক ভাবে বেশি কেন?
আবরার রহমান খান: দাম বেশি সেটা ঠিক বলা যাবে না। আমাদের ফোনগুলো দেশের মানুষের কেনার উপযোগী করেই মূল্যে নির্ধারণ করা হয়। অন্য কোম্পানির স্মার্টফোনে যে ধরনের ফিচার যুক্ত আছে আমাদের তৈরি ফোনগুলোতেও প্রায় সব ধরনের ফিচার বিদ্যমান। সে হিসাবে মূল্যে নির্ধারণ করলে আমাদের ফোনের মূল্যে অনেক কম।

ব্রেকিংনিউজ: তরুণ প্রজন্মের জন্য কী চিন্তা করছেন?

আবরার রহমান খান: তরুণ প্রজন্মকে প্রযুক্তির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে চাই। আগামীর প্রজন্মের জন্য নতুন নতুন আপডেট প্রযুক্তি পণ্য নিয়ে আসতে চাই। আর সে লক্ষ্যেই আমরা কাজ করছি।

ব্রেকিংনিউজ: আপনাদের আগামী দিনের উদ্দেশ্য কী?
আবরার রহমান খান: আগেই বলেছি এই বছরের শেষের দিকে বাজারে ট্যাব এবং খুব তারাতাড়ি স্মার্টওয়াচ নিয়ে আসবো আমরা। আগামী ৩ বছরে মধ্যে আমরা দেশে কোম্পানির ফ্যাক্টরি তৈরি করবো। যাতে করে অন্য দেশে থেকে সম্পূর্ণ পণ্যটা তৈরি না করতে হয়। ১০ শতাংশের ৫ শতাংশ অন্য দেশে বাকি ৫ শতাংশ নিজেদের দেশে তৈরি করবো।

ব্রেকিংনিউজ: আপনাকে ধন্যবাদ।
আবরার রহমান খান: ব্রেকিংনিউজকেও ধন্যবাদ।

ব্রেকিংনিউজ/এসিডিটি/এটিআর



আপনার মন্তব্য

সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং