Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

শনিবার ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, পূর্বাহ্ন

প্রচ্ছদ » স্বাস্থ্য 

আবুল বাজনদার ও রংপুরের ৩ জনের রোগ একই না

আবুল বাজনদার ও রংপুরের ৩ জনের রোগ একই না
স্বাস্থ্য ডেস্ক ১২ মার্চ ২০১৬, ৯:১৬ পূর্বাহ্ন Print

ঢাকা: বৃক্ষ মানব পরিচিতি পাওয়া আবুল বাজনদারের যে ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে হাত-পায়ে গাছের শাখা-প্রশাখার মতো আঁচিল গজিয়েছে, রংপুরের ৩ জন একই ধরনের সমস্যায় ভূগছেন না বলে ধারণা করছেন চিকিৎসকরা।

তবে পরীক্ষার পরই তাদের সমস্যা সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আবুল কালাম।

বার্ন ইউনিটে আবুল বাজনদারের চিকিৎসার কথা শুনেই সেখানে এসেছেন রংপুরের পীরগঞ্জের তাজুল ইসলাম (৪৮), তার ভাই বাসেত আলী (৫০) ও তাজুলের আট বছর বয়সী ছেলে রুহুল আমীন।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা তিনজনের রোগ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে না পেরে গত বুধবার তাদেরকে ঢাকায় পাঠান।

রংপুরের তিনজনের আবুল বাজনদারের রোগের সঙ্গে মিল রয়েছে কিনা জানতে চাইলে বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আবুল কালাম বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে এটা ওটা (বাজনদারের যে রোগ) নয়। আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছি এবং তারপর মেডিকেল বোর্ড গঠন করে সিদ্ধান্ত নিয়ে জানাব।’

জানা গেল, তাদের জীবিকা চলে ভিক্ষা করে। রুহুল আমীনের আরও দুই ভাই থাকলেও তাদের জীবন স্বাভাবিক। তবে তাজুলের বাবা আফাজ মুন্সীরও এ রোগ ছিল। তিনি কয়েক বছর আগে মারা গেছেন।

ঢাকায় বাসেতের স্ত্রী জায়েদা খাতুন, তাজুলের স্ত্রী রুবি বেগম ও রুবির ছোট ছেলে রুহানও এসেছে।

ঢাকায় কেন এসেছেন জানতে চাইলে বাসেত বলেন, আঙ্গুলগুলু কেমন বড় হয়ে গেছে। পায়ের তলায় কেমন জমাট বাঁধা। চলতে পারিনা, ভিক্ষা করেই জীবন চলে। তাও খাইয়ে দিতে হয় অন্যজনকে। তাই সুস্থ হতে এই হাসপাতালে আসছি।

ব্রেকিংনিউজ/ডিএইচ



আপনার মন্তব্য

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং