Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, অপরাহ্ন

প্রচ্ছদ » মুক্তমত 

ফতোয়া মনে ধরে কেউ টিভির সামনে বসে না

ফতোয়া মনে ধরে কেউ টিভির সামনে বসে না
মেহেরুননিসা জুবাইদা ০৯ মার্চ ২০১৬, ৯:০১ অপরাহ্ন Print

যারা ইসলামের দোহাই দিয়ে বলেন, “সিনেমা হারাম, অভিনয় হারাম, নাটক হারাম, টিভি হারাম” তাদরে জন্য বলছি। গতকাল একটা আলোচনায় বক্তাগণ ইসলামে নারী-পুরুষ বৈষম্য দেখাতে বলেছেন, “এই যে ইসলামে আছে, স্বামীর পায়ের নিচে স্ত্রীর বেহেশত; এটা কি ন্যায় হলো?” “ইসলামের মতো আর কোন ধর্মে নারীকে এত খাট করে দেখা হয়নি”।

আমি বললাম যে, আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে যা জানি তাতে শিখেছি এটি কোন হাদিস না। একি একটি ভুল প্রচলিত কথা। বক্তারা অনড়। একজন বললেন, এটা উনি নিজে পড়েছেন- ইসলাম এমনই এবং এটি ইসলামেরই কথা।

বললাম, কোথায় পড়েছেন আমাকে যদি রেফারেন্স দিতেন। উনারা বললেন, “মায়ের কাছে শুনেছি। মানুষের মুখে শুনেছি। নাটক সিনেমায় দেখেছি।”

এবার বলেন- কতজন নাট্যকার ইসলাম বিষয়ে গবেষণা করে নাটক লেখেন? কতজন নাট্যকার কোরআন না পড়ে না বুঝে কোরআনের রেফোরেন্স দেন না? যে সব নাট্যকারের নাটকে “স্বামীর পায়ের নিচে স্ত্রীর বেহেস্ত” বলা হয়েছে ইসলামের নামে, তাদের কেউ কি ইসলাম বা হাদিস বিশারদ ছিলেন? তাদরেকে কেউ কি তাদের এ বক্তব্যের জন্য কৈফিয়ত তলব করেছে? রেফারেন্স চেয়েছে?

প্রিয় হারাম পুলিশেরা। আপনাদের অতি বাড়াবাড়ির জন্য ধর্ম জ্ঞানে আকৃষ্ট মানুষেরা নাটক সিনেমার গল্প লেখা বা অভিনয় কারার সাহস পায়নি ঠিকই। কিন্তু এসব দেখা বন্ধ করেনি কেউ। এমনকি আপনাদের নিজেদের ঘরেও হয়তো বন্ধ হয়নি, বেড়েছে ছাড়া। নাটক দেখার সময় কেউ আপনাদের ফতোয়া মনে ধরে টিভির সামনে বসে না।

আপনারা যা করেছেন তা হলো জ্ঞানী মানুষদের ক্যামেরার সামনে নয়, পিছনে থেকেও দূরে রেখেছেন। মনে রাখবেন, ভিজ্যুয়াল মিডিয়াও শিক্ষার অংশ। কেউ কেউ নাটক সিনেমা থেকেও জ্ঞানার্জন করতে ব্রতী হয়; জীবন শেখে।

(লেখিকা: মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, সাহিত্যিক ও কলামিস্ট, নিউ ইয়ার্ক প্রবাসী)

ব্রেকিংনিউজ/এইচএস



আপনার মন্তব্য

মুক্তমত বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং