Facebook   Twitter   Google+   RSS (New Site)

শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, পূর্বাহ্ন

প্রচ্ছদ » শিক্ষা 

পিএসসির নামে শিক্ষার্থীদের বাড়তি চাপ দেয়া হচ্ছে

পিএসসির নামে শিক্ষার্থীদের বাড়তি চাপ দেয়া হচ্ছে
প্রতিবেদক ২৫ মার্চ ২০১৬, ১২:৪৫ অপরাহ্ন Print

ঢাকা: পিএসসি পরীক্ষার নামে কোমলমতি শিশুদের উপর অসহনীয় মানসিক চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে অভিভাবক ঐক্য ফোরাম।

একই সঙ্গে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা ২০১৬ সাল থেকেই বাতিল করাসহ ৬ দফা জানিয়েছে সংগঠনটি।

শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অভিভাবকরা চাপে থাকেন উল্লেখ করে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান টুলু বলেন, প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার নামে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মানসিক চাপ দেয়া হচ্ছে। এই পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে অভিভাবকরা সবসময় বাড়তি চিন্তায় থাকেন। তাই অবিলম্বে এই পরীক্ষা বন্ধ করতে হবে।

তিনি বলেন, সরকার ২০১৮ সাল থেকে পিএসসি পরীক্ষা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে। সরকারের এই উদ্যোগ অবশ্যই প্রসংশনীয়। কিন্তু আমাদের দাবি হলো ২০১৮ সাল নয়, ২০১৬ সাল থেকেই এ পরীক্ষা বন্ধ করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, জিপিএ-৫ এর মুলা ঝুলিয়ে স্কুলগুলোতে বাচ্চাদের উপর বাড়তি পড়ার চাপ প্রয়োগ করছে। স্কুল শেষে অভিভাবকরা কোচিংসহ পড়া শেষ করতে বাড়িতে রাত ১২টা পর্যন্ত বাধ্য হচ্ছেন পড়াতে। এই অবস্থা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।

এ সময় মানববন্ধন থেকে বক্তারা যেসব দাবি তুলে ধরে, ‘শ্রেণিকক্ষে মানসম্মত পাঠদান নিশ্চিত করা, অবৈধ ভর্তি বাণিজ্য বন্ধে ছাত্র ভর্তির নীতিমালা পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন করা, শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধের নীতিমালা বাস্তবায়ন করা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম-দূর্নীতি দূর করা, আইন করে শিক্ষা ও কোচিং বানিজ্য নিষিদ্ধ করতে হবে।’

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন- আইডিয়াল ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম উদ্দিন, ইঞ্জি. ফাহিম উদ্দিন, মো. সেলিম মিয়া প্রমুখ।

ব্রেকিংনিউজ/এসআই



আপনার মন্তব্য

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত ৩২


উপরে

ব্রেকিং